1. admin@dainikamaderphulpur.com : admin :
  2. chiran777@gmail.com : selim rana : selim rana
  3. info.popularhostbd@gmail.com : phulpur :
পেপার কোন ও টিউব ব্যবসায়ীদের সংবাদ সম্মেলন সিন্ডিকেট করে কাঁচামালের দাম বাড়ানোর অভিযোগ - দৈনিক আমাদের ফুলপুর
শনিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঘোড়াঘাটে ব্যংকে চুরির ঘটনায় গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা ময়মনসিংহে ডিবির অভিযানে ইয়াবা সহ গ্রেফতার ১ ভারতের গুরু ঘাসীদাস বিশ্ববিদ্যালয়ে মোটিভেশনাল ক্লাস নিলেন বিশ্বসেরা গবেষক ফুলপুরের ড. সাইদুর রহমান ভারতের গুরু ঘাসীদাস বিশ্ববিদ্যালয়ে মোটিভেশনাল ক্লাস নিলেন বিশ্বসেরা গবেষক ফুলপুরের ড. সাইদুর রহমান  গছানী কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেড-এর ৭ম বার্ষিক সাধারন সভা অনুষ্ঠিত সোহাগ মেম্বারের নেতৃত্বে শতবর্ষী রাস্তা বন্ধ করে ফসলি জমির ওপর দিয়ে নতুন রাস্তা নির্মাণ, হামলা ও বসতঘর ভাঙচুর, আহত সাংবাদিকরাও! ময়মনসিংহে হোমল্যান্ড লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিঃ কর্তৃক মৃত্যু দাবীর চেক হস্তান্তর ঘোড়াঘাটে প্রকাশ্য দিনের বেলায় ব্যাংক থেকে ৪ লাখ টাকা চুরি ২ চোরকে পুলিশে সোপর্দ ঘোড়াঘাটে ভ্যান চালক মেহেদুল হত্যা দেড় মাস পর গ্রেপ্তার ২ বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি’র শূভ উদ্বোধন

পেপার কোন ও টিউব ব্যবসায়ীদের সংবাদ সম্মেলন সিন্ডিকেট করে কাঁচামালের দাম বাড়ানোর অভিযোগ

Reporter Name

স্টাফ রিপোর্টারঃ বস্ত্র খাতে ব্যবহৃত সুতা ও কাপড় ধারণের উপকরণ পেপার কোন ও টিউব উৎপাদনে ব্যবহৃত তিন ধরনের কাঁচামালের দাম এক বছরের ব্যবধানে প্রায় দ্বিগুণ হয়ে গেছে। কয়েকটি কাগজ মিল সিন্ডিকেট করে কাঁচামালের দাম বৃদ্ধি করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশ পেপার কোন অ্যান্ড টিউব ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিপিসিটিএমএ) নেতারা।
রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আজ মঙ্গলবার আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন বিপিসিটিএমএর নেতারা। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনটির সভাপতি হালিম সরকার।
তিনি বলেন, গত বছরের মার্চে প্রতি টন কাঁচামালে ২ হাজার টাকা বাড়ানো হয়। এরপর ২০-২৫টি বড় কাগজের মিল সিন্ডিকেট করে নিয়মিত বিরতিতে দাম বাড়াচ্ছে। এর আগে ২০১১,২০১৫ ও ২০১৬ সালেও একইভাবে দাম বাড়ান হয়। তবে এবারের মতো ভয়াবহ পরিস্থিতি আগে হয়নি বলে দাবি করেন তিনি।
পেপার কোন ও টিউব তৈরির কাঁচামাল তিনটি হচ্ছে—সিমপ্লেক্স বোর্ড, সিমপ্লেক্স রোল ও লাইনার রোল। কোনো আলোচনা ছাড়াই এসব কাঁচামালের দাম বাড়ানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন হালিম সরকার। তিনি বলেন, গত এক বছরে প্রতি টন সিমপ্লেক্স বোর্ডের দাম ২৪ হাজার টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ৪৮ হাজার টাকা। প্রতি টন সিমপ্লেক্স রোলের দাম ২৬ হাজার টাকা থেকে ৫২ হাজার টাকা এবং লাইনার রোল ৩২ হাজার টাকা থেকে বেড়ে ৬০ হাজার টাকা হয়েছে।
সমিতির সভাপতি জানান, কাঁচামালের মূল্যবৃদ্ধির কারণে গত কয়েক মাসে ২৫-৩০টি পেপার কোন ও টিউব তৈরির কারখানা বন্ধ হয়েছে। যেসব কারখানা চালু আছে সেগুলোও বন্ধের শঙ্কায় আছে। সমস্যা সমাধানে দ্রুত সরকারের হস্তক্ষেপ দাবি করেন তিনি।
পেপার কোন ও টিউবের কাঁচামালের দাম নিয়ন্ত্রণকারী সিন্ডিকেটের সঙ্গে কারা জড়িত, সে বিষয়ে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অপারগতা জানান সংগঠনটির নেতারা। তবে তাদের চিহ্নিত করতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে তদন্ত করতে আহ্বান জানান তাঁরা।
বিপিসিটিএমএর সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রশিদ বলেন, ‘আমরা মাসখানেক আগে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে একটি অভিযোগপত্র দিয়েছি। তবে কোনো অগ্রগতি নেই।
বিশ্ববাজারে পেপার কোন ও টিউবের কাঁচামালের দাম স্থিতিশীল রয়েছে বলে উল্লেখ করেন মিজানুর রশিদ। তিনি বলেন,বিভিন্ন পণ্যের দাম বেড়েছে সত্য। তবে আমরা যে ধরনের কাঁচামাল ব্যবহার করি, সেটির দাম সেভাবে বাড়েনি। আর বাড়লেও সেটি নিয়ে আলোচনা করা যেতে পারে। এখন যেটি হচ্ছে, রাতে মোবাইলে খুদে বার্তা (এসএমএস) দিয়ে পরের দিনই দাম বাড়ান হচ্ছে।
বিপিসিটিএমএ জানায়, দেশব্যাপী সংগঠনটির সদস্য সংখ্যা ২০৬। এসব প্রতিষ্ঠানে গড়ে ৪০ জন করে শ্রমিক কাজ করেন। একেকটি পেপার কোন ও টিউব তৈরির কারখানা গড়তে ৪০ লাখ থেকে ১ কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে হয়।

সংবাদ টি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved
Design BY Raytahost